তুরস্কে মেলিকি হাতুন মসজিদ উদ্বোধনে এরদোগান

তুরস্কে মেলিকি হাতুন মসজিদ উদ্বোধনে এরদোগান

তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় একটি মসজিদ উদ্বোধন করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান। শুক্রবার মেলিকি হাতুন নামের ওই মসজিদটি রাজধানীর উলুস সংলগ্ন এলাকায় অবস্থিত। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, আধুনিক স্থাপত্যে নির্মিত এ মসজিদটি তুরস্কের অটোমান, সেলজুক ঐতিহ্য বহন করেছে।

সাড়ে ১৯ হাজার স্কয়ার মিটার আয়তনে এ মসজিদে একসঙ্গে ৭ হাজার মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারবেন। রয়েছে তিনটি সুদৃশ্য মিনার। একটি হলরুম, একটি জাদুঘর, একটি সভাকক্ষ, একটি প্রদর্শনী হল ও পাঁচটি পার্কিং গ্যারেজ।

মালিকি হাতুন নামকরণ সম্পর্কে এরদোগান জানান, ১৪ শতাব্দীতে মালিকি হাতুন নামের ওই নারী বর্তমান আঙ্কারার অধিবাসী ছিলেন। একজন বিত্তশালী এ নারী তুরস্কে অনেকগুলো মাদ্রাসা, বাগান, গোসলখানা, পানির ফোয়ারা ও মসজিদ নির্মাণ করেছিলেন। তার প্রতিষ্ঠিত ঐতিহ্যবাহী মাদ্রাসায় হাজী বৈরাম ওয়ালীর মত জগতবিখ্যাত আলেমে দ্বীন শিক্ষকতা করতেন।

প্রসঙ্গত, মধ্য এশিয়ায় ১১ শতকে তুরস্কে সেলজুক রাজবংশের পত্তন করে। তাদের শাসনের মাধ্যমেই এই অঞ্চলের জনগণ তুর্কি ভাষা ও সংস্কৃতির সঙ্গে মিশে যায়। ১৩শ শতকে মোঙ্গলদের আক্রমণে সেলজুক রাজবংশের পতন ঘটে। ১৩ শতকের শেষ দিকে এখানে উসমানীয় সাম্রাজ্যের পত্তন হয়। এরা পরবর্তী ৬০০ বছর তুরস্ক শাসন করে এবং আনাতোলিয়া ছাড়িয়ে মধ্যপ্রাচ্য, পূর্ব ইউরোপ এবং উত্তর আফ্রিকার এক বিশাল এলাকা জুড়ে বিস্তৃতি লাভ করে। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর সাম্রাজ্যটির পতন ঘটে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eight − 6 =