সৌদি আরবে ‘থাড’ নেয়ার পরিকল্পনা ট্রাম্পের

সৌদি আরবে ‘থাড’ নেয়ার পরিকল্পনা ট্রাম্পের

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তার আসন্ন সৌদি আরব সফরে রিয়াদকে উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ‘থাড’ সরবরাহের চুক্তি করার কথা বিবেচনা করছেন। এ সফরে ওয়াশিংটন ও রিয়াদের মধ্যে কয়েকশ’ কোটি ডলারের সমরাস্ত্র চুক্তি হতে পারে বলে মার্কিন গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে।

খুব শিগগিরই প্রেসিডেন্ট হিসেবে ট্রাম্প তার প্রথম বিদেশ সফরে সৌদি আরব ও ইসরাইলে যাবেন।  ইসরাইলের পাশাপাশি তার রিয়াদ সফর সৌদি আরবের প্রতি টাম্প প্রশাসনের বিশেষ গুরুত্ব দেয়ার বিষয়টি ফুটিয়ে তুলেছে।

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে ইরানের পরমাণু সমঝোতাকে সমর্থন জানানোর কারণে ওয়াশিংটনের সঙ্গে দূরত্ব তৈরি করেছিল রিয়াদ।  সেই দূরত্ব কমিয়ে আনার লক্ষ্যেই মূলত ডোনাল্ড ট্রাম্প রিয়াদ সফরে যাবেন।

এদিকে মার্কিন প্রশাসনের নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক পদস্থ কর্মকর্তার বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, সৌদি আরবের কাছে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র বিক্রির চুক্তি করে ডোনাল্ড ট্রাম্প আমেরিকার অস্ত্র শিল্পে প্রচুর মানুষের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করতে চান।

দৃশ্যত, তিনি এ সফরে রিয়াদকে ১০০ কোটি ডলার মূল্যের ‘লকহিড মার্টিন’ কোম্পানির তৈরি থাড ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা সরবরাহের প্রস্তাব দেবেন। উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে সৃষ্ট উত্তেজনার অজুহাতে আমেরিকা সম্প্রতি দক্ষিণ কোরিয়ায় এই ব্যবস্থা মোতায়েন করেছে। চীন ও রাশিয়া মার্কিন সরকারের ওই সিদ্ধান্তের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে। বেইজিং ও মস্কো মনে করছে, উত্তর কোরিয়াকে লক্ষ্য করে থাড মোতায়েন করা হলেও এর মূল লক্ষ্য চীন ও রাশিয়া।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 + two =