কাতারের পাশে তুরস্ক ইরান

কাতারের পাশে তুরস্ক ইরান

সৌদি আরব ও পারস্য উপসাগরীয় কয়েকটি আরব মিত্রদেশ সম্পর্ক ছিন্ন করার কারণে একঘরে হয়ে পড়া কাতারে খাদ্য সরবরাহ শুরু করেছে ইরান। ইরানি গণমাধ্যম জানিয়েছে, খাদ্যপণ্যবাহী একটি কার্গো বিমান ইরান থেকে কাতারে গেছে।
খাদ্যবাহী বোয়িং ৭৪৭ কার্গো বিমানটি শিরাজ নগরী থেকে কাতারের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দেয়। শিরাজ নগরী থেকে বিমানে করে কাতারে যেতে একে ঘণ্টারও কম সময় লাগে। গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ইরান থেকে বোয়িংয়ের যে কার্গো বিমানটি কাতারে গেছে তাতে ১০০ টন পণ্য বহন করা যায়।

এদিকে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়েপ এরদোয়ান সংসদে কাতারের পক্ষে প্রকাশ্যে শক্ত অবস্থান নিয়েছেন। তিনি বলেন, কাতার এবং অন্য কয়েকটি আরব দেশের মধ্যকার দ্বন্দ্বে তার দেশ দোহাকে সমর্থন দেয়া অব্যাহত রাখবে।

গত সোমবার কাতারের সঙ্গে সৌদি আরব ও আরো কয়েকটি আরব দেশ সম্পর্ক ছিন্ন করলে তুরস্ক কিছুটা নিরপেক্ষ অবস্থান নেয় তবে দ্রুত সে অবস্থান পরিবর্তন করে এরদোয়ান এখন প্রকাশ্যে কাতারের পক্ষ নিয়েছেন।

এর আগে, চলতি সপ্তাহের শুরুর দিকে ইরানের কৃষিপণ্য রপ্তানিকারক সংগঠনের সভাপতি রেজা নওরানির বরাত দিয়ে ইরানের গণমাধ্যম জানিয়েছিল, আগামী সপ্তাহ থেকে কাতারে খাদ্য সরবরাহের বিষয়ে আলোচনা চলছে। এজন্য ইরানের বন্দর আব্বাস, বুশেহর ও লেঙ্গেহ বন্দরকে সমানতালে প্রস্তুত করা হচ্ছে।

তিনি জানান, ইরান এখন প্রতিদিন ৪০ থেকে ৫০টি কন্টেইনার পণ্য কুয়েত ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে পাঠায়। একই পরিমাণ পণ্য কাতারে পাঠানো হবে। ইরানের দক্ষিণাঞ্চলীয় বন্দর হতে পণ্যবাহী জাহাজ আট থেকে ১২ ঘণ্টার মধ্যে কাতারে পৌঁছাতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen − seven =