জঙ্গি মনে করে সোমালিয়া মন্ত্রীকে হত্যা

জঙ্গি মনে করে সোমালিয়া মন্ত্রীকে হত্যা

সোমালিয়ার গণপূর্ত এবং পুনর্নির্মাণমন্ত্রী আব্বাস আবদুল্লাহ সিরাজিকে নিরাপত্তা প্রহরীদের গুলিতে নিহত হয়েছেন। মোগাদিসুতে তার গাড়ি লক্ষ্য করে আরেক সরকারি কর্মকর্তার নিরাপত্তা রক্ষীরা গুলি চালালে ৩১ বছর বয়সী সিরাজি মারা যান। ‘দুর্ঘটনাক্রমে’বা ‘ভুলে’ গুলি চালানো হয়েছে বলে দেশটির সরকারি এবং পুলিশ সুত্রগুলো জানিয়েছে।

সোমলিয়ার প্রেসিডেন্ট প্রাসাদের বাইরে সরকারি নিরাপত্তা প্রহরীরা ভুল করে সিরাজির গাড়ি লক্ষ্য করে গুলি চালায়। নানা সূত্র থেকে বলা হয়েছে, আরেক সরকারি কর্মকর্তার নিরাপত্তা রক্ষীরা ভুলক্রমে গুলি চালিয়েছে।

এক বিবৃতিতে সোমালিয়ার সরকার এ ঘটনায় গভীর দুঃখ প্রকাশ করেছে। এ ঘটনার তদন্ত হবে বলে জানিয়েছেন এক পুলিশ কর্মকর্তা।

সোমালিয়ার মন্ত্রিসভার সবচেয়ে কম বয়সী মন্ত্রী সিরাজি কেনিয়ার দাদাব  শরণার্থী শিবিরে বড়ো হয়েছেন। এটি বিশ্বের সবচেয়ে বড় শরণার্থী শিবির হিসেবে পরিচিত।  ২০১৬ সালে নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর তাঁকে মন্ত্রিসভার সদস্য করেন দেশটির প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ আবদুল্লাহি মোহাম্মদ।

সিরাজির এমন চমকপ্রদ উত্থানের কাহিনীকে সোমালিয়ায় ব্যাপক উৎসাহব্যঞ্জক হিসেবে বিবেচনা করা হয়। গত সিকি শতাব্দী ধরে অব্যাহত সংঘাত এবং অরাজকতায় জড়িয়ে রয়েছে দেশটি।

আল-কায়েদার সঙ্গে সম্পর্কিত  তাকফিরি সন্ত্রাসীগোষ্ঠী আশ-শাবাব দেশটিতে নিয়মিত বোমা হামলা এবং হত্যাকাণ্ড চালিয়ে যাচ্ছে। অবশ্য সিরাজি হত্যায় এ গোষ্ঠী জড়িত থাকার কোনো আভাষ এখনো পাওয়া যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twelve + 15 =